টিপস এন্ড ট্রিকস

মোবাইলে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়ানোর উপায়

বর্তমান সময়ে বিরক্তির অন্যতম কারণ কম স্পিডের ইন্টারনেট। ঢাকার বাইরের কথা বাদ-ই দিলাম, রাজধানীতে বসেও অনেক সময় ইন্টারনেটের গতি কম পাওয়া যায়। তা সে মোবাইল ফোনেই হোক বা ল্যাপটপে, ট্যাবে। কিছু ছোট বিষয়ে খেয়াল রাখলে আমাদের মোবাইলের ইন্টারনেটের গতি বাড়তে পারে।আসুন জেনে নেই, মোবাইলে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়ানোর কিছু উপায়।

১.অব্যবহৃত অ্যাপ

মোবাইলের অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসগুলি আনইনস্টল করুন । এটি প্রথম এবং সবচেয়ে সহজ উপায়।

২.মোবাইলের স্টোরেজ

মোবাইলের স্টোরেজের অপ্রয়োজনীয় ডেটা ডিলিট করুন।ফোনের মেমোরির পরিবর্তে এসডি কার্ড বা অনলাইনে ড্রপবক্স, গুগল ড্রাইভের মতো সেবা ব্যবহার করতে পারেন। মোবাইলের ক্যাশ মেমোরি যখন ভরা থাকে, যন্ত্রটিও তখন ধীরগতির হয়ে যায়, আর এ জন্য ইন্টারনেটের গতিও কমে যায়।স্টোরেজ বাড়ার সাথে সাথে আপনার ইন্টারনেটের স্পিডও বাড়বে।

৩.ইন্টারনেট সংযোগ পরীক্ষা করা

ইন্টারনেট সংযোগ এর জন্য অনেক সময় স্পিড কম বেশি হয়ে থাকে।ইন্টারনেটের গতি পরীক্ষা করার অ্যাপ যেমন স্পিডটেস্ট ব্যবহার করে দেখে নিতে পারেন বর্তমান ইন্টারনেটের গতির অবস্থা। গতি অনেকটা নির্ভর করে বেশি ব্যবহার, পিক আওয়ারে ব্যবহার, নেটওয়ার্ক এবং কী ধরনের ইন্টারনেট সংযোগ (ডেটা প্ল্যান) নিয়েছেন তার ওপর। ওয়াই-ফাই বা মোবাইল নেটওয়ার্ক, যেটাই ব্যবহার করেন না কেন দেখতে হবে এর সিগন্যাল ঠিকমতো পাচ্ছেন কি না।

৪.ফোনের নেটওয়ার্ক সেটিংস

অনেক সময় ফোনের সেটিংসে হেরফের করলেও ইন্টারনেটের স্পিড কমে যায়। এমন পরিস্থিতিতে আপনার ফোনের নেটওয়ার্ক সেটিংস একবার রিসেট করে দেওয়া ভাল।আপনার ফোনের নেটওয়ার্ক সেটিংসে গিয়ে দেখুন সঠিক নেটওয়ার্কে যুক্ত আছে কি না। এটি শুধু টুজি বা থ্রিজির নেটওয়ার্কের সঙ্গে সীমাবদ্ধ নয়। অনেক মোবাইলের ক্ষেত্রে নেটওয়ার্ক স্বয়ংক্রিয়ভাবে GSM/WCDMA/LTE নির্ধারিত হয়। যদি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারণ না হয় তাহলে ম্যানুয়ালি নেটওয়ার্ক নির্বাচন করুন। আপনি যদি থ্রিজি ব্যবহারকারী হন তাহলে নেটওয়ার্ক টাইপ WCDMA বা 3G রাখুন।

আরও পড়ুন:ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারন এবং সমাধান

 

৫. সঠিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার

টুজি নেটওয়ার্কের পরিবর্তে থ্রিজি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করুন। এতে স্পিড বাড়বে।

৬. ওয়াই-ফাই ব্যবহার এর ক্ষেত্রে

আপনার ওয়াই-ফাই ক্ষেত্রে সবসময় নজর রাখুন রাউটারের ওপর, যাতে লেটেস্ট ফার্মওয়্যার থাকে। আপনি যদি  দ্রুত গতি আর সর্বাধিক কভারেজ পেতে চান তবে ব্যবহার করতে পারেন মেশ ওয়াই-ফাই।  অনেকেই রাউটারকে দেয়ালের সাথে লাগিয়ে রাখে, এটা করবেন না! কারণ দেয়াল এবং আবদ্ধ জায়গা ইন্টারনেটের গতি কমিয়ে দিতে পারে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button