সোশ্যাল মিডিয়া

ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারন এবং সমাধান

ফেসবুক মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে ফেসবুক  Ads Manager সর্ম্পকে। কিছুদিন ধরে বিভিন্ন কারনে এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হয়ে যাচ্ছে। আজকে আলোচনা করব ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারন এবং সমাধান নিয়ে।

বর্তমানে অনলাইন মার্কেটিং করার জন্য বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা হয়। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ফেসবুক মার্কেটিং।

বেশ কিছুদিন ধরে নানান কারনে ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হচ্ছে। এখন আপনাকে খুজে বের করতে হবে ডিজেবল হওয়ার কারন এবং এর সমাধান কী?

ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারন

সেপ্টেম্বরের ১ তারিখ থেকে ফেসবুক বেশ কিছু আপডেট নিয়ে আসে। যেমন: ক্লাসিক মোড পরিবর্তন করে নিয়ে আসে আপডেট মোড। তখন থেকেই শুরু হতে থাকে এক ঝটিকা পরিচ্ছন্ন অভিযান। বিভিন্ন ফেক আইডি ডিজেবল করে দিচ্ছে অথবা রুলস ব্রেক করলেই হারাতে হচ্ছে আইডি।

যেসকল এড পোস্ট কপি-পেস্ট করে রান করার চেষ্টা করা হয় তা এপ্রুভ কম হবে, হলেও তার রিচ কম হবে।

অগোছালো পোস্ট যা মানুষকে আর্কষন করে না সেগুলোর রিচ অনেক কম হয় এবং সেলও কম হবে। ফলে এডের খরচ অনেকগুন বেড়ে যাবে।

ঠিকমতো অডিয়েন্স টার্গেট না করে এড রান কররে ফেসবুক নিজেই তার রিচ কমিয়ে দেয়।

ফেসবুকের Ad Policies এবং Community Standards না মেনে এড রান করলে এড এক্যাউন্ট ডিজেবল করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:ফেসবুক শীঘ্রই বাংলাদেশে অফিস খুলছে না

 

যেসব পেজে Ad Policies না মেনে বারবার এড রান করানোর চেষ্টা করা হয় সাথে সাথে রিজেক্ট হচ্ছে বা পলিসি ভায়োলেট হচ্ছে। সে পেজ গুলো ফেসবুকের কাছে অযোগ্য বলে বিবেচিত যার ফলে Boost Unavailable করে দেয়।

তবে অনেক ক্ষেত্রে ফেসবুকের Ad Policies মেনে চলার পরেও ডিজেবল হচ্ছে ও এড রিজেক্ট হচ্ছে। যেহেতু ফেসবুক রোবটের মাধ্যমে এড রিভিউ করে তাই ১০০% নির্ভুল নয়। সেক্ষেত্রে ফেসবুকের সার্পোট বক্সে কথা বলতে হবে।

ফেসবুক এড রান করার জন্য সবচেয়ে ট্রেন্ডিং বিষয় ছিল কুপন। যদিও কুপন ব্যবহার করলে পেজের পলিসি ভায়োলেট হয় এবং বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়।

আগে এড রান করে ১৫/২৫ ডলার স্পেন্ড হলে পেমেন্ট দিতে হতো। কিন্তু এখন ২ ডলার স্পেন্ড হলেই পেমেন্ট করতে হয়।

অনেক কুপন ব্যবসায়ীরা র্ভাচুয়াল কার্ড দিয়ে বুস্ট করে। ফলে ২ ডলার স্পেন্ট হওয়ার পরে এড অফ হয়ে যায়। এমন প্রতারনা থেকে সাবধান থাকবেন। ফেসবুককে ফাকি দিয়ে কখনো ভালো ফলাফল আশা করা যায় না।

ফেসবুক মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে সবথেকে কমন প্রশ্ন হচ্ছে ৫ ডলারে কতটুকু রিচ পাওয়া যায়। ফেসবুকের এলগোরিদম অনুযায়ী এটা নির্ভর করে পোস্টের ডিজাইন এবং কন্টেন্ট এর উপর। কন্টেন্ট যত ভালো হবে রিচ এবং এংগেজ ততো বেশি হবে।

ফেসবুক এডস এক্যাউন্ট ডিজেবল হচ্ছে তাহলে করনীয় কি?

করনীয় হচ্ছে, ফেসবুকের সকল রুলস মেনে ভালো মানের পোস্ট বুস্ট করা। কুপন ব্যবসায়ীদের থেকে দূরে থেকে রিয়েল ডলার দিয়ে এড রান করুন।

নতুন ব্যাক্তিদের দিয়ে এড রান করা থেকে বিরত থাকুন। তারপরেও এড একাউন্ড ডিজেবল হলে আপিল করুন। আশা করি ১৪ দিনের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে।

বিস্তারিত জানুন এখানে

Saidul Islam

আমি মো: সাইদুল ইসলাম। বেশ কিছুদিন ধরে প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করছি। এছাড়াও এসইও নিয়ে কাজ করতেছি। আমিও এখনো একজন লার্নার, তাই বলবো ‍নিয়মিত ব্লগ পড়ুন, জানতে থাকুন ও নতুন কিছু শিখতে থাকুন।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button